গাছের নাম ডিক্যাপ্রিও!

Advertisements

নেটফ্লিক্সের ‘ডোন্ট লুকআপ’ ছবির সাফল্যের জোয়ারে ভাসছেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। সঙ্গে আরেকটি সুখবর, লন্ডনের রয়্যাল বোটানিক গার্ডেনের একটি গাছের নামকরণ হয়েছে অস্কারজয়ী অভিনেতার।

সংবাদমাধ্যম বলছে, একটি গাছের নতুন প্রজাতি আবিষ্কৃত হয়েছে কিছুদিন আগেই। সেই গাছটির নামই দেওয়া হয়েছে ইউভারিওপসিস ডিক্যাপ্রিও।

গাছটি ক্যামেরুন জঙ্গলে আবিষ্কৃত হয়েছে। বিশ্বের অন্য কোথাও এর অস্তিত্ব টের পাওয়া যায়নি। তাহলে বুঝুন কতটা দুর্লভ ডিক্যাপ্রিও!

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিজ্ঞানীরা নাকি লিওনার্দোকে সম্মান জানাতেই নতুন প্রজাতিটির নামকরণ করেছেন।

গাছটিকে লিওনার্দোর নাম দিয়েছেন এক কিউ বিজ্ঞানী। গ্রীষ্মমণ্ডলীয় চিরহরিৎ গাছটি ৪ মিটার লম্বা। ১৫ সেন্টিমিটারের লম্বা পাতা রয়েছে। চকচকে হলুদ ফুল হয় গাছের শরীরে। গাছটি ইলাং ইলাং পরিবারের। জঙ্গলের অল্প কিছু এলাকায় একে পাওয়া যায়। খুবই বিরল প্রজাতির একটি গাছ, জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

বিশেষজ্ঞ মার্টিন চিক বলেছেন, ‘অনেক ধরনের গাছের প্রজাতি আছে এই পৃথিবীতে। আমরা অনেকের কথাই হয়তো জানি না। হয়তো এ রকম অনেক প্রাণী এসে বিলুপ্তও হয়ে গিয়েছে। সেটাও হয়তো আমরা জানতে পারিনি। এসবের জন্য আমরা মানুষকেই দায়ী করতে চাই।’

বেশ কিছু বছর ধরে জঙ্গল বাঁচানো, গাছ কাটা বন্ধ, পরিবেশ, পানি সংরক্ষণের মতো নানা প্রকল্পের সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করেছেন লিওনার্দো।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, এটা খুব কঠিন সময়। এই কঠিন সময়ে লিওনার্দো নিজে থেকে এগিয়ে এসে পাশে দাঁড়িয়েছেন। জঙ্গল বাঁচানোর চেষ্টা করছেন।

‘টাইটানিক’ অভিনেতার যে প্রকৃতি ভালো লাগে ও তিনি যে প্রকৃতি বান্ধব— স্পষ্ট বোঝা যায় তার সামাজিক মাধ্যমের পোস্টগুলো দেখলেই। গোটা টাইমলাইন জুড়ে কেবলই পশুপাখি, গাছগাছালি ও জঙ্গলের ছবি-ভিডিও।