নিখোঁজের ৪ দিন পর মাদ্রাসাছাত্রের লাশ উদ্ধার

Advertisements

নিখোঁজের চার দিন পর মাদ্রাসাছাত্র আল-আমিনের (১৩) লাশ পাওয়া গেছে। আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলা শহরের নির্মাণাধীন বাড়ির পেছন থেকে লাশটি উদ্ধার করে কালীগঞ্জ থানা-পুলিশ।

গত ৩০ নভেম্বর কালীগঞ্জ উপজেলা শহরের আড়পাড়ায় অবস্থিত আমজাদ আলী মাদ্রাসায় রাতে ওয়াজ মাহফিল শুনতে গিয়ে নিখোঁজ হয় আল-আমিন। এরপর আর সে ফিরে আসেনি। পুলিশ বলছে, আল-আমিনের গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন আছে।

আল-আমিন আড়পাড়ার বিশ্বাসপাড়ার আবদুর রাজ্জাকের একমাত্র ছেলে। আল-আমিন কালীগঞ্জ উপজেলা শহরের নতুন বাজারে সাঁওতাল হেরা হাফেজুল কোরআন মাদ্রাসার ছাত্র ছিল। তার লাশ কালীগঞ্জ থানায় আছে। সেখান থেকে লাশের সুরতহাল করার জন্য জেলা হাসপাতালে নেওয়া হবে।

পরিবারের সদস্যরা বলেন, গত ৩০ নভেম্বর রাত ৮টার দিকে মাদ্রাসা থেকে ওয়াজ মাহফিল শুনতে যায় আল-আমিন। তখন থেকে সে নিখোঁজ ছিল। রাত ১০টার পর পরিবারের সদস্যরা তাকে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। আল-আমিনের সন্ধান পেতে রাতেই মাইকিং করা হয়। পরের দিনও মাইকিং করা হয়।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মতলেবুর রহমান বলেন, কিশোরটির গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত আছে। তাকে হত্যা করে এই স্থানে ফেলে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।