ওয়াটসনেও ভাগ্য ফিরলো না রংপুরের

Advertisements

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের চলতি আসরের ২২তম ম্যাচে মুখোমুখি হয় মুশফিকুর রহিমের খুলনা টাইগার্স এবং শেন ওয়াটসনের রংপুর রেঞ্জার্স। টেবিলের তলানিতে থাকা রংপুরের অধিনায়কের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয় ওয়াটসনের কাঁধে। খুলনার কাছে ৫২ রানে হেরেছে রংপুর। খুলনা ৬ ম্যাচের চারটিতে জিতলেও হেরেছে দুটিতে। আর নিজেদের ছয় ম্যাচের একটিতে জিতেছে রংপুর।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় রংপুর। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে খুলনা তোলে ১৮২ রান। জবাবে, ৯ উইকেট হারিয়ে রংপুর তোলে ১৩০ রান।

মিরপুরে ব্যাটিংয়ে নেমে খুলনার ওপেনার মেহেদি হাসান মিরাজ ৭ বলে তিন বাউন্ডারিতে করেন ১২ রান। আরেক ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত ২২ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ৩০ রান। তিন নম্বরে নামা রিলে রুশো কোনো রান করতে পারেননি। ১২ বলে ১৩ রান করে বিদায় নেন শামসুর রহমান।

খুলনার দলপতি মুশফিক ফিফটি হাঁকান। নাজিবুল্লাহ জাদরানকে নিয়ে ৮২ রানের জুটিও গড়েন। ২৬ বলে ৬টি চার আর একটি ছক্কায় ৪১ রান করে বিদায় নেন জাদরান। মুশফিক ৪৮ বলে চারটি চার আর দুটি ছক্কায় করেন ৫৯ রান। রবি ফ্রাইলিঙ্ক ৯ রানে বিদায় নেন।

রংপুরের আফগান স্পিনার মোহাম্মদ নবী ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট। মুকিদুল ইসলাম ২ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। লুইস গ্রেগরি ৪ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে দুটি উইকেট তুলে নেন। ক্যামেরুন দেলপোর্ট ৩ ওভারে ৪০ রান দিয়ে কোনো উইকেট পাননি। সঞ্জিত সাহা ৩ ওভারে ২৬ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি। মোস্তাফিজুর রহমান ৪ ওভারে ২৮ রান দিয়ে তুলে নেন তিনটি উইকেট।

১৮৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনার ওয়াটসন করেন ৫ রান। আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম ৯ বলে করেন ২০ রান। দেলপোর্ট ৯ রানে ফিরলেও ২৬ বলে ৩৪ রান করেন গ্রেগরি। ফজলে মাহমুদ ৪, নবী ৭, সাদমান ১৬, জহুরুল ১, সঞ্জিত ৫, মুকিদুল ০ রান করেন। ১১ বলে এক চার আর দুই ছক্কায় ২১ রানে অপরাজিত থাকেন মোস্তাফিজ।

খুলনার শহিদুল ইসলাম ৪ ওভারে ২৩ রান করে নেন চারটি উইকেট। তানভির ইসলাম পান দুটি উইকেট। একটি করে উইকেট পান মোহাম্মদ আমির, রবি ফ্রাইলিঙ্ক আর শফিউল ইসলাম। ম্যাচ সেরা হন শহিদুল ইসলাম।